বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৬:২২ |
শিরোনামঃ
পোরশা নিতপুর আলোর পথে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একীভূতকরণের কৌশল শিখন – শেখানো এবং মূল্যায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা ব্যাপক অনিয়মের মাধ্যমে এমপিও ভুক্ত হলেন কাজেম আলী সহ স্কুল এন্ড কলেজের ৩ শিক্ষক দীঘিনালায় বন্যার্তদের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রান সহায়তা বেনাপোল এর কৃতিসন্তান রিজু হলেন ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহ- সভাপতি চলে গেল রেমাল রেখে গেল অনেক ক্ষত রেমাল‘র প্রভাবে ভারি বর্ষণে দীঘিনালায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত উপজেলা প্রশাসনের ত্রান বিতরণ সপথ অনুষ্ঠানেই বাঘিনী কন্যার পরিচয় দিলেন – সুমি: সীতাকুণ্ডে ১৪টি মামলার আসামি জয়নাল আবোদীন মিনু ৫০৪পিছ ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার। বিজয়নগরে এবার ২০ কোটি টাকার লিচু বিক্রির লক্ষ্য উপকূলে চলছে ঘূর্ণিঝড় রিমালের ব্যাপক তান্ডব !
  • HOME
  • বিনোদন
  • ‘জায়েদ-সায়ন্তিকা মিলে ফাঁসিয়ে দিল আমাকে’
  • ‘জায়েদ-সায়ন্তিকা মিলে ফাঁসিয়ে দিল আমাকে’

    দৈনিক দেশ প্রতিদিন
    সংবাদটি শেয়ার করুন

    প্রথমবারের মতো ঢাকাই সিনেমায় অভিনয় করতে এসেই বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন কলকাতার অভিনেত্রী সায়ন্তিকা ব্যানার্জি। প্রায় সপ্তাহ খানেক কক্সবাজারে ‘ছায়াবাজ’ ছবিতে অভিনয়ের পর নৃত্যু পরিচালক ও প্রযোজকের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলে কলকাতায় ফিরে গেছেন তিনি। 

    এক সপ্তাহ শুটিং করার পর অনিশ্চিত হয়ে গেল বাংলাদেশের জায়েদ খান ও কলকাতার নায়িকা সায়ন্তিকার সিনেমা ‘ছায়াবাজ’-এর বাকি কাজ। রোববার রাতে প্রথম আলোকে ছবির প্রযোজক মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘নৃত্য পরিচালক মাইকেল বাবুর সঙ্গে সায়ন্তিকা ও জায়েদ খান গানের শুটিং করতে চাননি। তাঁরা দুজন মিলে মাইকেলকে  অপমান–অপদস্ত করেছেন। ৬ সেপ্টেম্বর লোকেশনে কাজ না করে তাঁরা মাইকেলকে সারা দিন বসিয়ে রেখেছিলেন। তাঁরা গাড়ি থেকেই নামেননি। এখন মাইকেলের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। শুটিং নিয়ে নানা ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার বন্ধ করতে হবে, তা না হলে কাজ করব না। প্রথম ধাপের শুটিংয়ে আমার প্রায় ৩৫ লাখ টাকা খরচ হয়ে গেছে। প্রয়োজন হলে জলে যাবে টাকা, তা–ও আর এই ছবির কাজ শেষ করব না।’
    এই প্রযোজকের কথা, ‘আমার দেশের শিল্পীকে অপমান করবে, সেটা আমি একজন সিনেমার মানুষ হয়ে মেনে নেব না। কারণ, আমার দেশকে অন্য দেশের মানুষ এসে ছোট করতে পারেন না। আজ মাইকেলকে অপমান করেছে, কাল পরিচালকের সঙ্গে করত, আরেক দিন হয়তো ইউনিটের অন্য কারোর সঙ্গে করত। সেটি হতে দেব না। এর সমাধান না হলে কাজ আর করব না। যা ক্ষতি হয় হবে।’এই প্রযোজক জানান, এই গল্প নিয়ে সিনেমা করার কথা ছিল না তাঁর। তাঁর দাবি, ‘এই গল্প নিয়ে একটি ওয়েব ফিল্ম বানানোর কথা ছিল। কিন্তু জায়েদ খানের অনুরোধে এই সিনেমা শুরু করা। তা না হলে আমি করতাম না। অথচ জায়েদ খান ও সায়ন্তিকা মিলে ফাঁসিয়ে দিল আমাকে। কী আর করার, সব বিচার ওপরওয়ালার ওপর ছেড়ে দিলাম।’
    অন্যদিকে ছবির শুটিংকে ঘিরে প্রযোজকের নামে নানা ধরনের অভিযোগ করে গণমাধ্যমে বক্তব্য দিয়েছেন নায়ক-নায়িকা দুজনই।

    সায়ন্তিকা গণমাধ্যমে বলেছেন, শুটিং চলাকালীন নানা ধরনের অব্যবস্থাপনা ছিল। এভাবে শুটিং করা সম্ভব নয়। একটি সিনেমায় কাজ করতে হলে উপযুক্ত টিমওয়ার্ক দরকার, সেটি এই শুটিংয়ে ছিল না। যদিও প্রথমে নৃত্যশিল্পী মাইকেলের সঙ্গে আমার ঝামেলা হয়েছিল। কিন্তু সেটি বড় ইস্যু নয়। এখানে বড় ইস্যু প্রযোজক।’
    অভিনেত্রীর কথায়, ‘বারবার আমি প্রযোজক মনিরুলের সঙ্গে কিছু টেকনিক্যাল সমস্যা নিয়ে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছিলাম, কিন্তু কোনো উত্তরই পাওয়া যায়নি। তাঁর শুটিং নিয়ে আগে থেকে কোনো পরিকল্পনা নেই। কোনো ব্যবস্থা নেই।’

    সংবাদটি শেয়ার করুন

    Read More..

    রেগে গিয়ে অভিনেত্রীর সঙ্গে এ কী করলেন জনি ডেপ?
    এবার কি ভার্চ্যুয়াল যুদ্ধে লিপ্ত বুবলী আর পরীমনি
    শাকিবের জন্মদিনে বুর্জ খলিফায় ‘রাজকুমার’
    মেহেরপুরে হয়ে গেল শীতকালীন ভলিবল টুর্নামেন্ট
    আই এফ আই সি ব্যাংকের ব্যতিক্রমী প্রতিবেশী উৎসব পালিত 
    জমে উঠেছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা
    হাতীবান্ধায় ঐতিহ্যের উচ্ছ্বাসে মুখরিত পিঠা উৎসব 
    প্রেমে একের পর এক ব্যর্থতা, আক্ষেপ করে যা বললেন সালমান খান
    নোটিশ :