বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৯:৩৯ |
শিরোনামঃ
দেশ তৈরি করতে হলে সোনার মানুষ তৈরি করতে হবে- ড. হুমায়ন কবীর পোরশা নিতপুর আলোর পথে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একীভূতকরণের কৌশল শিখন – শেখানো এবং মূল্যায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা ব্যাপক অনিয়মের মাধ্যমে এমপিও ভুক্ত হলেন কাজেম আলী সহ স্কুল এন্ড কলেজের ৩ শিক্ষক দীঘিনালায় বন্যার্তদের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রান সহায়তা বেনাপোল এর কৃতিসন্তান রিজু হলেন ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহ- সভাপতি চলে গেল রেমাল রেখে গেল অনেক ক্ষত রেমাল‘র প্রভাবে ভারি বর্ষণে দীঘিনালায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত উপজেলা প্রশাসনের ত্রান বিতরণ সপথ অনুষ্ঠানেই বাঘিনী কন্যার পরিচয় দিলেন – সুমি: সীতাকুণ্ডে ১৪টি মামলার আসামি জয়নাল আবোদীন মিনু ৫০৪পিছ ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার। বিজয়নগরে এবার ২০ কোটি টাকার লিচু বিক্রির লক্ষ্য
  • HOME
  • আন্তর্জাতিক
  • ফিলিস্তিনের গাজায় যুদ্ধ বিরতির জন্য আরব-ইসলামিক সম্মেলনের ডাক সৌদির
  • ফিলিস্তিনের গাজায় যুদ্ধ বিরতির জন্য আরব-ইসলামিক সম্মেলনের ডাক সৌদির

    দৈনিক দেশ প্রতিদিন
    সংবাদটি শেয়ার করুন

    ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘাত থামানোর আহ্বান জানিয়ে আরব-ইসলামিক সম্মেলন আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের আঞ্চলিক নেতা সৌদি আরব। মধ্যপ্রাচ্যের আরব অঞ্চল ও বিশ্বের সব ইসলামি দেশকে এই সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানো হবে।

    সৌদির বিনিয়োগমন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সোমবার সিঙ্গাপুরে ব্লুমবার্গ নিউ ইকোনমি ফোরামের সম্মেলনে সৌদি আরবের প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দিয়েছেন তিনি। সেই সম্মেলনের অবসরে রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে খালিদ আল ফালিহ বলেন, ‘আগামী কয়েক দিনের মধ্যে জরুরিভিত্তিতে আরব-ইসলামিক সম্মেলন আয়োজন করতে যাচ্ছি। আরব অঞ্চল ও ইসলামি বিশ্বের সব দেশকে সেই সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হবে।’

    ‘সৌদি আরব ও ইসলামি বিশ্বের অন্তর্ভুক্ত সব দেশ— আমরা সবাই যাই গাজা উপত্যকায় চলমান সংঘাতের একটি শান্তিপূর্ণ সমাধান আসুক। কীভাবে সেই সমাধান আসতে পারে— সে সংক্রান্ত আলোচনাই হবে সেই সম্মেলনে মূল এজেন্ডা। আমরা আশা করছি, যে উদ্দেশে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হচ্ছে— তা সফল হবে।’

    গত ৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলের ভূখণ্ডে অতর্কিত হামলা চলানোর পর সেদিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। সেই অভিযান এখনও চলছে।

    হামাসের হামলায় ইসরায়েলে নিহত হয়েছেন ১ হাজার ৪০০ জনেরও বেশি ইসরায়েলি ও অন্যান্য দেশের নাগরিক। এছাড়া হামলার প্রথম দিনই ইসরায়েল থেকে অন্তত ২৩৪ জনকে জিম্মি হিসেবে গাজায় ধরে নিয়ে গেছে হামাস।

    অন্যদিকে, ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর অভিযানে গাজায় নিহতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ১০ হাজার। এই নিহতদের অর্ধেকেরও বেশি শিশু ও নারী।

    আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, ১৯৫৩ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর এই প্রথম এত বড় মাত্রার সংঘাত হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের আল-আকসা অঞ্চলে। বিমান বাহিনীর হামলায় গত এক মাসে গাজা উপত্যকায় বাস্তুচ্যুত হয়েছেন অন্তত ১৫ লাখ মানুষ। তাদের মধ্যে প্রায় ৬ লাখ ৭০ হাজার মানুষ আনরোয়া পরিচালিত স্কুলগুলোতে আশ্রয় নিয়েছেন।

    ইসরায়েল জানিয়েছে, হামাসকে পুরোপুরি নির্মূল করার আগ পর্যন্ত এই যুদ্ধ তারা থামাবে না। যুক্তরাষ্ট্র ও তার ইউরোপীয় মিত্ররা ইসরায়েরের এই অবস্থানকে সমর্থন করেছে; সেই সঙ্গে গাজার বেসামরিকদের নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়া ও সেখানে ত্রাণ সরবরাহ অব্যাহত রাখতে সেখানে ‘মানবিক বিরতি’ ঘোষণার ডাক দিয়েছে।

    অন্যদিকে রাশিয়া, চীন, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চল এবং জাতিসংঘ যুদ্ধে এক সপ্তাহ পর থেকেই শুরু থেকে গাজায় যুদ্ধবিরতির সোচ্চার আহ্বান জানিয়ে আসছে।

    সংবাদটি শেয়ার করুন

    Read More..

    অগ্নিঝরা তাপমাত্রায় ভুগছে মেহেরপুর গাংনী
    শরিয়তপুরে কৃতিনশা নদীর কবলে শেষ হলো বসত বাড়ি
    সৌদি আরবে ঈদ বুধবার
    বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তি মারা গেছেন
    ইউক্রেনের শীঘ্রই ‘পতন’ হতে পারে: ম্যাক্রোঁ
    গাজায় প্রতিদিন ৩৭ জন মা প্রাণ হারাচ্ছেন
    ভুটান থেকে বিদ্যুৎ আমদানিতে ভারতের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
    সু চির বাড়ি নিলামে উঠলে ও নেই কোন ক্রেতা
    নোটিশ :